Categories
সংবাদ

মুজাহিদের ফাঁসির রায় বহালে উদীচী’র সন্তোষ, দ্রুত রায় বাস্তবায়ন দাবি

১৯৭১ সালে মহান মুক্তিযুদ্ধের সময় সক্রিয়ভাবে বিরোধিতাকারী সংগঠন জামায়াতে ইসলামির সেক্রেটারি জেনারেল, মুক্তিযুদ্ধে শেষভাগে দেশের সূর্যসন্তান বুদ্ধিজীবীদের হত্যাকাণ্ডের অন্যতম প্রধান পরিকল্পনাকারী, আল বদর নেতা আলী আহসান মুহাম্মদ মুজাহিদের বিরুদ্ধে দেয়া আন্তর্জাতিক অপরাধ ট্রাইব্যুনালের মৃত্যুদণ্ডাদেশ আপিল বিভাগে বহাল থাকায় সন্তোষ প্রকাশ করেছে বাংলাদেশ উদীচী শিল্পীগোষ্ঠী। এক বিবৃতিতে উদীচী’র সভাপতি কামাল লোহানী এবং সাধারণ সম্পাদক প্রবীর সরদার বলেন, প্রধান বিচারপতি এস কে সিনহার নেতৃত্বাধীন আপিল বিভাগের চার সদস্যের বেঞ্চ মুজাহিদের আপিল খারিজ করে দেয়ায় তার পরিকল্পনায় সংঘটিত হত্যাকাণ্ডের শিকার বুদ্ধিজীবীদের পরিবারের সদস্যরাসহ মুক্তিযুদ্ধে স্বপক্ষের জনগণ স্বস্তি পেয়েছেন। এছাড়া, ঘৃণ্য যুদ্ধাপরাধী ও স্বাধীনতাবিরোধীদের সর্বোচ্চ শাস্তির যে প্রত্যাশা এদেশের মুক্তিযুদ্ধের স্বপক্ষের মানুষের মধ্যে ছিল তা কিছুটা দেরিতে হলেও ধীরে ধীরে বাস্তবায়ন হওয়ার পথে রয়েছে বলেও মন্তব্য করেন তারা। এ রায়ের মাধ্যমে জাতি হিসেবে কলঙ্কমুক্তির পথে বাংলাদেশ আরো একধাপ এগিয়ে গেলো বলে মনে করেন উদীচীর সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদক। অবিলম্বে এ রায়ের পূর্ণাঙ্গ কপি প্রকাশ এবং রিভিউ নিস্পত্তির মাধ্যমে যত দ্রুত সম্ভব আলী আহসান মুহাম্মদ মুজাহিদকে ফাঁসির কাষ্ঠে ঝোলানোর মাধ্যমে রায় কার্যকরের জন্য সরকারের প্রতি আহবান জানান কামাল লোহানী ও প্রবীর সরদার। এছাড়া, অন্যান্য যেসব যুদ্ধাপরাধীর বিচারকাজ প্রলম্বিত হচ্ছে সেগুলো অবিলম্বে নিস্পত্তির দাবিও জানান উদীচীর সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদক।

বিবৃতিতে উদীচীর কেন্দ্রীয় সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদক আরো বলেন, দলের নির্বাহী প্রধান অর্থাৎ সেক্রেটারি জেনারেল মানবতাবিরোধী অপরাধে দোষী সাব্যস্ত ও দণ্ডপ্রাপ্ত হওয়ার ঘটনায় একাত্তরে স্বাধীনতাবিরোধী কর্মকাণ্ডে জামায়াতে ইসলামির সম্পৃক্ততা সন্দেহাতীতভাবে প্রমাণিত হয়েছে। বিভিন্ন মামলার রায় ঘোষণার সময় আদালতের পর্যবেক্ষণেও মানবতাবিরোধী কর্মকাণ্ডে জামায়াতের সংশ্লিষ্টতার বিষয়টি বারবারই উঠে এসেছে। তাই বাংলাদেশের মাটিতে এই দলটির রাজনীতি করার কোন অধিকার থাকতে পারে না মন্তব্য করে অবিলম্বে জামায়াতে ইসলামীর রাজনীতি নিষিদ্ধ করার জন্য সরকারের প্রতি জোর দাবি জানান উদীচীর সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদক। শুধু রাজনীতি নিষিদ্ধই নয়, জামায়াতের নেতাদের প্রত্যক্ষ মদদে ও পৃষ্ঠপোষকতায় যেসব অর্থনৈতিক ও ব্যবসা প্রতিষ্ঠান গড়ে উঠেছে তার সবগুলোকে রাষ্ট্রায়ত্ত্বকরণের মাধ্যমে জামায়াতের অর্থনৈতিক ভিত্তি নিশ্চিহ্ন করার জন্য সরকারের প্রতি আহবান জানান উদীচী’র সভাপতি কামাল লোহানী এবং সাধারণ সম্পাদক প্রবীর সরদার।

Leave a Reply

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.