Categories
সংবাদ

শিল্পাচার্য জয়নুল আবেদীনের জন্মশতবার্ষিকীতে উদীচী নিবেদন করলো ‘ম্যাডোনা-৪৩’

joynulশিল্পাচার্যের অনবদ্য সৃষ্টিকে সর্বত্র ছড়িয়ে দেয়ার প্রত্যয় নিয়ে জয়নুল আবেদীনের জন্মশতবার্ষিকী উদযাপন করলো বাংলাদেশ উদীচী শিল্পীগোষ্ঠী। শিল্পাচার্যের জন্মশতবার্ষিকী উপল¶ে গত ১২ সেপ্টেম্বর বাংলাদেশ শিল্পকলা একাডেমীর জাতীয় চিত্রশালা মিলনায়তনে উদীচী আয়োজন করে ‘জয়নুল জন্মশতবর্ষ অনুষ্ঠানমালা’। ওইদিন বিকাল চারটায় শিল্পাচার্য্যরে স্মৃতির প্রতি শ্রদ্ধা জানিয়ে বিশিষ্ট শিল্পীদের চিত্র অঙ্কনের মধ্য দিয়ে শুর“ হয় অনুষ্ঠানমালা। এরপর উদীচী কেন্দ্রীয় সংসদের সভাপতি কামাল লোহানীর সভাপতিত্বে আলোচনা পর্বে অংশ নেন দেশবরেণ্য শিল্পী হাশেম খান, শিল্পী আনোয়ার হোসেন, শিল্পী খুশি কবির, শিল্পী শাহজাহান আহমেদ বিকাশ, শিল্পাচার্যের সহধর্মিনী জাহানারা আবেদীন প্রমূখ। আলোচনা পর্বে জয়নুল আবেদীনের জন্মশতবার্ষিকীর স্মারক বক্তৃতা উপস্থাপন করেন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের চার“কলা অনুষদের সাবেক ডীন ও উদীচী কেন্দ্রীয় সংসদের সহ-সভাপতি অধ্যাপক মতলুব আলী। আলোচনা পর্বের শুর“তে ¯^াগত বক্তব্য রাখেন উদীচী কেন্দ্রীয় সংসদের সাধারণ সম্পাদক প্রবীর সরদার। আর এটি সঞ্চালনা করেন উদীচী’র কেন্দ্রীয় চলচ্চিত্র ও চার“কলা বিভাগের সম্পাদক প্রদীপ ঘোষ। আলোচনার পর শত প্রদীপ প্রজ্বলনের মধ্য দিয়ে উদীচী’র শিল্পীরা নিবেদন করে গণসঙ্গীত। সবশেষে শিল্পাচার্য্যকে নিয়ে উদীচী’র কেন্দ্রীয় চলচ্চিত্র ও চার“কলা বিভাগের উদ্যোগে নির্মিত প্রামাণ্যচিত্র ‘ম্যাডোনা-৪৩’ প্রদর্শিত হয়।

শিল্পাচার্যের জন্মশতবার্ষিকীতে উদীচী’র কেন্দ্রীয় চলচ্চিত্র ও চার“কলা বিভাগের প্রযোজনায় নির্মিত প্রামাণ্যচিত্র ‘ম্যাডোনা-৪৩’-এর মূল বিষয়বস্তু হলো ১৯৪৩ সালের ভয়াল দুর্ভি¶ের পরিপ্রে¶িতে জয়নুল আবেদীনের আঁকা কিছু চিত্রকর্ম এবং তার ইতিহাস। ৩০ মিনিট ব্যপ্তির প্রামাণ্যচিত্রটিতে জয়নুলের জীবনী নয়, তাঁর চিত্রকর্মকেই ফুটিয়ে তোলা হয়েছে। উদীচী’র কেন্দ্রীয় চলচ্চিত্র ও চার“কলা বিষয়ক সম্পাদক প্রদীপ ঘোষের গ্রন্থণা ও পরিকল্পনায় এ প্রামাণ্যচিত্রে চিত্রকলায় বিশেষ পর্যায়ের চিত্রশৈলী, ‘ম্যাডোনা’ নিয়ে আলোচনা করা হয়েছে। এ ধরণের ছবির বৈশিষ্ট্য, এতে মা ও শিশু প্রধান উপজীব্য হয়ে ওঠেন। শিল্পাচার্য্য জয়নুল আবেদীন ১৯৪৩ সালের দুর্ভি¶ের সময় যেসব ছবি এঁকেছেন, তার বেশিরভাগেরই মূল বিষয়বস্তু ছিল মা ও শিশু। মূলত এই দু’টি চরিত্রকে প্রাধান্য দিয়েই তিনি সৃষ্টি করেছেন একের পর এক কালজয়ী চিত্রকর্ম। প্রামাণ্যচিত্রটিতে শিল্পাচার্য্য জয়নুল আবেদীনের সহধর্মিনী জাহানারা আবেদীন, শিল্পী মিজানুর রহমান, বিশিষ্ট চিত্রকর ও জয়নুল আবেদীনের ছাত্র রফিকুন নবী, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের চার“কলা অনুষদের সাবেক ডীন অধ্যাপক মতলুব আলী, উদীচী’র কেন্দ্রীয় সভাপতি কামাল লোহানীসহ বিশিষ্টজনেরা জয়নুল আবেদীনের শিল্পকর্মের মানবিক দিকগুলোকে নিয়ে প্রাণবš— আলোচনা করেছেন। এছাড়া, নানা ধরণের স্থিরচিত্র ও ভিডিওচিত্রের মাধ্যমে ৪০’এর দশকে জয়নুল আবেদীনের জীবনের নানা গুর“ত্বপূর্ণ অধ্যায়কেও ফুটিয়ে তোলা হয়েছে এ প্রামাণ্যচিত্রে।