Categories
সংবাদ

শিক্ষাবিদ জিল্লুর রহমান সিদ্দিকী’র মৃত্যুতে উদীচী’র শোক

zillur-rahman-siddiqui-dsস্বাধীনতা পুরস্কারে ভূষিত বিশিষ্ট শিক্ষাবিদ ও জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ের সাবেক উপাচার্য অধ্যাপক জিল্লুর রহমান সিদ্দিকীর মৃত্যুতে গভীর শোক জানিয়েছে বাংলাদেশ উদীচী শিল্পীগোষ্ঠী। এক শোক বার্তায় উদীচীর কেন্দ্রীয় সংসদের সভাপতি কামাল লোহানী ও সাধারণ সম্পাদক প্রবীর সরদার বলেন, সারাজীবন শিক্ষাখাতের মতো মানুষ গড়ার মহান পেশায় নিয়োজিত থেকে অসংখ্য গুণী মানুষ তৈরি করেছেন অধ্যাপক জিল্লুর রহমান সিদ্দিকী।পাশাপাশি শিক্ষা গবেষণার ক্ষেত্রেও গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রেখেছেন তিনি। শিক্ষাব্রতে নিযুক্ত থাকা ছাড়াও জাতীয় রাজনৈতিক ক্ষেত্রেও নানা বিপর্যয়ের সময়ে কার্যকর ভূমিকা রেখেছেন জিল্লুর রহমান সিদ্দিকী। ছাত্র-শ্রমিক-পেশাজীবীসহ সর্বস্তরের জনতার স্বতঃস্ফুর্ত আন্দোলনে স্বৈরাচার এরশাদের শাসনামলের অবসান ঘটে গণতান্ত্রিক শাসনব্যবস্থায় উত্তরণের মধ্যবর্তী সময়ে বাংলাদেশের ইতিহাসে প্রথম তত্ত্বাবধায়ক সরকারের একজন গুরুত্বপূর্ণ সদস্য হিসেবে দায়িত্ব পালন করেন অধ্যাপক জিল্লুর রহমান সিদ্দিকী। শিক্ষা ও রাজনীতি ছাড়াও বাংলা একাডেমি, এশিয়াটিক সোসাইটি, ভারত-বাংলাদেশ মৈত্রী সমিতির গুরুত্বপূর্ণ দায়িত্ব এবং নাগরিক নাট্য চক্রের সভাপতির দায়িত্বও পালন করেন তিনি। এই মহান শিক্ষাব্রতীর মৃত্যুতে বাংলাদেশের শিক্ষাজগতের অপূরণীয় ক্ষতি হলো বলেও মন্তব্য করেন উদীচীর সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদক।

১৯২৮ সালে ঝিনাইদহে একজন শিক্ষকের পরিবারে জন্ম নেয়া জিল্লুর রহমান সিদ্দিকীর পড়াশোনায় হাতেখড়ি হয় কলকাতায়। দেশভাগের পর ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় থেকে ইংরেজি সাহিত্যে স্নাতক ও স্নাতকোত্তর ডিগ্রি অর্জন করেন তিনি। সরকারি বৃত্তি নিয়ে অক্সফোর্ড বিশ্ববিদ্যালয়ে উচ্চতর ডিগ্রি লাভ করে দেশে ফিরে প্রথমে ঢাকা কলেজ এবং পরে রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ে ইংরেজি বিভাগে অধ্যাপনা শুরু করেন জিল্লুর রহমান সিদ্দিকী। ১৯৭৬ সালে জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্যের দায়িত্ব গ্রহণের পর ১৯৮৪ সালে ওই পদ থেকে ইস্তফা দিলেও সেখানে ইংরেজির অধ্যাপক হিসেবে অধ্যাপনা করেন তিনি। ২০০০ সালে বেসরকারি গণ বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্যের দায়িত্ব নেয়ার তিন বছর পর স্বেচ্ছা অবসরে যান অধ্যাপক জিল্লুর রহমান সিদ্দিকী। ৮৬ বছরের দীর্ঘ জীবনে অধ্যাপনা ছাড়াও বাংলা ও ইংরেজি ভাষায় ৪০টি গ্রন্থ লিখেছেন অধ্যাপক জিল্লুর রহমান সিদ্দিকী। মুক্ত চিন্তার বিকাশের ক্ষেত্রে অধ্যাপনা, গবেষণা এবং সৃজনশীল লেখনীর মাধ্যমে বিশেষ অবদান রাখায় ২০১০ সালে তাঁকে স্বাধীনতা পুরস্কারে ভূষিত করা হয়। এছাড়াও, সাহিত্যে অবদানের জন্য তিনি বাংলা একাডেমি পুরস্কার এবং আলাওল সাহিত্য পুরস্কার লাভ করেছেন। বেশ কিছুদিন অসুস্থ থাকার পর গত ১১ নভেম্বর রাতে তিনি শেষ নিঃশ্বাস ত্যাগ করেন।

বিশিষ্ট শিক্ষাবিদ অধ্যাপক জিল্লুর রহমান সিদ্দিকীর মৃত্যুতে তাঁর শোকসন্তপ্ত পরিবারের প্রতি সমবেদনা জানিয়েছেন উদীচী’র কেন্দ্রীয় সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদকসহ অন্যান্য নেতৃবৃন্দ।

Leave a Reply

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.