বিপ্লবী কামাক্ষ্যা রায়চৌধুরীর মৃত্যুতে উদীচী’র শোক

ব্রিটিশ বিরোধী আন্দোলনের অন্যতম অগ্রসৈনিক, প্রখ্যাত কৃষক নেতা, বিপ্লবী কামাক্ষ্যা রায়চৌধুরীর মৃত্যুতে গভীর শোক প্রকাশ করেছে বাংলাদেশ উদীচী শিল্পীগোষ্ঠী। এক শোক বার্তায় উদীচী’র কেন্দ্রীয় সংসদের সভাপতি কামাল লোহানী ও প্রবীর সরদার বলেন, কিংবদন্তি এ বিপ্লবীর মৃত্যুতে উপমহাদেশের সবচেয়ে গৌরবময় অধ্যায় ব্রিটিশ শাসনবিরোধী আন্দোলনের একটি উজ্জ্বল পর্বের সমাপ্তি ঘটলো। চল্লিশের দশকে দক্ষিণাঞ্চলে কৃষক আন্দোলন গড়ে তোলার মাধ্যমে ব্রিটিশ বিরোধী আন্দোলনকে আরো বেগবান করার ক্ষেত্রে কামাক্ষ্যা রায়চৌধুরীর অবদান ঐতিহাসিক ছিল বলে মন্তব্য করেন তারা। ব্রিটিশ শাসনামলের অবসানের পর পাকিস্তানি শোসকদের বিরুদ্ধে বাংলাদেশের জনগণের স্বাধীনতা আন্দোলনেও গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখেন কামাক্ষ্যা রায়চৌধুরী।

১৯২০ সালের ২০ জুন খুলনার ডুমুরিয়া উপজেলার ভদ্রাদিয়া গ্রামে জন্ম নেয়া কামাক্ষ্যা রায়চৌধুরীর শৈশব কেটেছে সৈয়দপুর জেলায়। সৈয়দপুর উচ্চ বিদ্যালয়ের শিক্ষক বিপ্লবী সুবোধ সুরের অনুপ্রেরণায় ১৯৩৬ সালে মাত্র ১৬ বছর বয়সে স্বদেশী আন্দোলনে জড়িয়ে পড়েন তিনি। বিপ্লবীদের দল ‘অনুশীলন’-এর সক্রিয় কর্মী হিসেবে কাজ শুরুর পর তিনি কমিউনিস্ট মতাদর্শকে জীবনের পাথেয় করে নেন। ১৯৪২ সালে মহাত্মা গান্ধীর ‘ভারত ছাড়ো’ আন্দোলনে যুক্ত থাকার কারণে কারাবরণ করেন কামাক্ষ্যা রায়চৌধুরী। মুক্তির পর দুর্ভিক্ষ মোকাবিলায় আত্মনিয়োগ করেন তিনি। সেসময় সারাদেশে কৃষক আন্দোলন গড়ে তোলায় মনোযোগী হন তিনি। চল্লিশের দশকে যে পাঁচজন বিপ্লবী ব্রিটিশ শাসকদের ত্রাস হিসেবে বিবেচিত ছিলেন তার অন্যতম ছিলেন কামাক্ষ্যা রায়চৌধুরী। ১৯৪৮ সালে তেভাগা আন্দোলনে জড়িত থাকার দায়ে তিনি আবারো কারাবন্দী হন। মুক্তি পান ১৯৫৫ সালে। পাকিস্তান শাসনামলে ৬২’র শিক্ষা আন্দোলন, ৬৬’র ছয় দফা, ৬৯’র গণঅভ্যুত্থানসহ বাংলাদেশের স্বাধীনতা আন্দোলনের প্রতিটি পর্বে সংগঠকের ভূমিকা পালন করেন কামাক্ষ্যা রায়চৌধুরী।

দীর্ঘদিন ধরে বার্ধক্যজনিত নানা অসুস্থতায় ভুগছিলেন কামাক্ষ্যা রায়চৌধুরী। তবে, শারীরিক অসুস্থতাকে পাত্তা না দিয়ে মানসিক দৃঢ়তায় সক্রিয় ছিলেন তিনি। সবশেষ গত ১৯, ২০ ও ২১ ফেব্র“য়ারি ঢাকায় বাংলাদেশ উদীচী শিল্পীগোষ্ঠী আয়োজিত “সাম্রাজ্যবাদ ও সাম্প্রদায়িকতা বিরোধী দক্ষিণ এশীয় সাংস্কৃতিক কনভেনশন”-এর উদ্বোধনও করেন কামাক্ষ্যা রায়চৌধুরী। তবে, রোগের সাথে লড়াইয়ে হার মেনে গত ২৮ ফেব্র“য়ারি রাতে খুলনার ডুমুরিয়ায় নিজ বাড়িতে শেষ নিঃশ্বাস ত্যাগ করেন এই আজীবন বিপ্লবী। মৃত্যুকালে তাঁর বয়স হয়েছিল ৯৬ বছর। ব্রিটিশ বিরোধী আন্দোলনের অন্যতম অগ্রসৈনিক, প্রখ্যাত কৃষক নেতা, বিপ্লবী কামাক্ষ্যা রায়চৌধুরীর মৃত্যুতে তাঁর শোকসন্তপ্ত পরিবারের প্রতি সমবেদনা জানিয়েছেন উদীচী’র কেন্দ্রীয় সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদকসহ অন্যান্য নেতৃবৃন্দ।

Leave a Reply

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.