উদীচী কেন্দ্রীয় ও জাতীয় পরিষদ সভা অনুষ্ঠিত

জাতীয় সম্মেলন সফল করার আহবান
সংগঠনের শৃঙ্খলাভঙ্গের অভিযোগে বাংলাদেশ উদীচী শিল্পীগোষ্ঠী গাজীপুর জেলা সংসদ বিলুপ্ত ঘোষণা করা হয়েছে। গত ০৫ ও ০৬ ডিসেম্বর’২০১৪ অনুষ্ঠিত উদীচী কেন্দ্রীয় সংসদ ও জাতীয় পরিষদের সভায় এ সিদ্ধান্ত নেয়া হয়। দীর্ঘদিন ধরেই নিস্ক্রিয় অবস্থায় ছিল উদীচী গাজীপুর জেলা সংসদ। বারবার যোগাযোগ করার পরও জেলা সংসদের দায়িত্বে থাকা সভাপতি মো. সারওয়ার হোসেন এবং সাধারণ সম্পাদক মো. কানিস-উর-রহমান কোন ধরনের প্রত্যুত্তর দেননি। কেন্দ্র থেকে জেলা সংসদের কার্যক্রম স্বাভাবিক করার উদ্যোগ বারবার নেয়া হলেও তারা তাতে সাড়া দেননি। তাই, উদীচী কেন্দ্রীয় সংসদ ও জাতীয় পরিষদের সর্বসম্মত সিদ্ধান্তক্রমে ০৬ ডিসেম্বর’২০১৪ শনিবার থেকে গাজীপুর জেলা সংসদের কার্যনির্বাহী কমিটি বিলুপ্ত ঘোষণা করে এর সব ধরনের কার্যক্রম স্থগিত করা হয়েছে। Udichi N.C Meeting

গাজীপুরে নতুন জেলা কমিটি গঠনের পূর্বে পর্যন্ত সেখানে উদীচীর নামে চালানো যেকোন ধরনের কার্যক্রম উদীচী কেন্দ্রীয় সংসদের অনুমোদিত নয় বলে গণ্য করা হবে এবং সেগুলোর কোন দায় উদীচী কেন্দ্রীয় সংসদ নেবে না। তবে, গাজীপুর জেলার অন্তর্গত জয়দেবপুর, টঙ্গী, কাপাসিয়া, মৌচাক ও কালিয়াকৈর-এ উদীচীর শাখা সংসদগুলোর কার্যক্রম স্বাভাবিকভাবে চলবে। ওইসব শাখা সরাসরি কেন্দ্রীয় সংসদের তত্ত্বাবধানে পরিচালিত হবে।

Udichi CC Meetingউদীচীর কেন্দ্রীয় সংসদ ও জাতীয় পরিষদের সভায় আগামী ২৬ ও ২৭ ডিসেম্বর অনুষ্ঠিত হতে যাওয়া উদীচীর ঊনবিংশ জাতীয় সম্মেলন সফল করার লক্ষ্যে গঠিত সম্মেলন প্রস্তুতি পরিষদের সার্বিক কর্মকা-ের অগ্রগতি পর্যালোচনা করা হয়। উদীচীর সভাপতি কামাল লোহানীকে আহবায়ক করে গঠিত প্রস্তুতি পরিষদের ১৪টি উপ-পরিষদ সার্বক্ষণিকভাবে তাদের কার্যক্রম চালিয়ে যাচ্ছে বলে সভায় জানানো হয়। উদীচীর মোট ৭১টি সাংগঠনিক জেলা সংসদের মধ্যে এরই মধ্যে ৩৭টি জেলায় সম্মেলন অনুষ্ঠিত হয়েছে জানিয়ে সভায় উদীচীর সাধারণ সম্পাদক প্রবীর সরদার বলেন, বাকি জেলাগুলোর সম্মেলনও জাতীয় সম্মেলনের আগেই সম্পন্ন করা সম্ভব হবে বলে আশা করা যাচ্ছে।

“নিত্য বাজুক বজ্রবীণা, মানুষ জাগুক জয়ে”- এই শ্লোগানকে সামনে রেখে আগামী ২৬ ও ২৭ ডিসেম্বর অনুষ্ঠিত হতে যাচ্ছে লড়াই, সংগ্রাম ও গণসাংস্কৃতিক ঐতিহ্যের অন্যতম ধারক-বাহক সংগঠন বাংলাদেশ উদীচী শিল্পীগোষ্ঠীর ঊনবিংশ জাতীয় সম্মেলন। চলমান নানামাত্রিক সামাজিক সমস্যা-সঙ্কট, অসামঞ্জস্যতা, অন্যায়-অত্যাচার-নির্যাতন, বৈষম্যের বিরুদ্ধে সাধারণ মানুষকে সচেতন করে তোলা এবং নিরন্তর লড়াই-সংগ্রামের মাধ্যমে জয়লাভ করার প্রত্যয়ে এ শ্লোগান নির্ধারণ করা হয়েছে। আগামী ২৬ ডিসেম্বর সকাল ১০টায় কেন্দ্রীয় শহীদ মিনারের পাদদেশে সম্মেলনের উদ্বোধন করবেন ২০০৫ সালে নেত্রকোনায় মৌলবাদী প্রতিক্রিয়াশীল গোষ্ঠীর নৃশংস বোমা হামলায় নিহত উদীচী নেতা খাজা হায়দার হোসেন এবং সুদীপ্তা পাল শেলীর পরিবারের সদস্য এবং ওই ঘটনায় আহত সহযোদ্ধারা। এরপর কেন্দ্রীয় পাবলিক লাইব্রেরির শওকত ওসমান স্মৃতি মিলনায়তনে অনুষ্ঠিত হবে সম্মেলনের আলোচনা ও সাংগঠনিক অধিবেশনসমূহ। এছাড়া, দুইদিনই সন্ধ্যায় থাকবে গান, নাটক, নৃত্য, আবৃত্তি ও অন্যান্য পরিবেশনা। সভ্যতার নিয়ন্তা, ইতিহাসের স্রষ্টা সংগ্রামী জনগণের জীবনের অভিব্যক্তি প্রকাশের দুরন্ত সাহস নিয়ে অবিরাম ছুটে চলা সাংস্কৃতিক সংগঠন উদীচীর ঊনবিংশ জাতীয় সম্মেলন সফল করার জন্য সবার প্রতি আহবান জানান উদীচীর নেতৃত্ব।

Leave a Reply