উদীচী’র জাতীয় পরিষদ সদস্য শিখা কর্মকারের স্বামী-এর মৃত্যুতে উদীচী’র শোক

বাংলাদেশ উদীচী শিল্পীগোষ্ঠীর জাতীয় পরিষদ সদস্য ও গেন্ডারিয়া শাখার সহ-সভাপতি শিখা কর্মকার-এর স্বামী শ্যামল কর্মকার-এর মৃত্যুতে গভীর শোক প্রকাশ করেছে বাংলাদেশ উদীচী শিল্পীগোষ্ঠী। এক শোক বার্তায় উদীচী’র কেন্দ্রীয় সংসদের সভাপতি কামাল লোহানী ও সাধারণ সম্পাদক প্রবীর সরদার বলেন, পেশায় ব্যবসায়ী শ্যামল কর্মকার একজন আদর্শ প্রগতিশীল মানুষ ছিলেন। মহান মুক্তিযুদ্ধের চেতনায় বিশ্বাসী শ্যামল কর্মকার তাঁর স্ত্রী শিখা কর্মকার এবং দুই ছেলে শুভ কর্মকার ও সৌরভ কর্মকারকে দীচী’র মতো একটি প্রগতিশীল সাংস্কৃতিক সংগঠনের সাথে যুক্ত থেকে একটি অসাম্প্রদায়িক, সাম্যবাদী ও মুক্তিযুদ্ধের চেতনায় সমৃদ্ধ বাংলাদেশ গড়ার লড়াইয়ে নিয়োজিত হতে উদ্বুদ্ধ করেন। তাঁর বড় ছেলে শুভ কর্মকার উদীচী গেন্ডারিয়া শাখা সংসদের সংগঠন বিষয়ক সম্পাদক এবং ছোট ছেলে সৌরভ কর্মকার উদীচী গেন্ডারিয়া শাখা সংসদের সহ-সাধারণ সম্পাদক হিসেবে দায়িত্ব পালন করছেন। শ্যামল কর্মকার-এর অকাল মৃত্যুতে উদীচী তার পরিবারের একজন গুরুত্বপূর্ণ সদস্যকে হারালো বলে মন্তব্য করেন কামাল লোহানী ও প্রবীর সরদার। শিখা কর্মকার, শুভ কর্মকার এবং সৌরভ কর্মকারসহ তাদের পরিবারের সদস্যরা শ্যামল কর্মকারের মৃত্যুর যন্ত্রণা কাটিয়ে উঠে তাঁর দেখানো পথে জীবনের বাকি সময় চলবেন এই প্রত্যাশা করেন উদীচী’র সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদক।

শ্যামল কর্মকার বড় ধরনের কোন অসুস্থতায় ভুগছিলেন না। গত ০৪ এপ্রিল শনিবার সকালে নিজ বাসভবনে হঠাৎ করে হৃদরোগে আক্রান্ত হন তিনি। তাঁকে দ্রুত নিকটবর্তী হাসপাতালে নেয়া হলেও সেখানে কর্তব্যরত চিকিৎসকরা শ্যামল কর্মকারকে মৃত ঘোষণা করেন। মৃত্যুকালে তাঁর বয়স হয়েছিল ৫৫ বছর।

বাংলাদেশ উদীচী শিল্পীগোষ্ঠীর জাতীয় পরিষদ সদস্য ও গেন্ডারিয়া শাখার সহ-সভাপতি শিখা কর্মকার-এর স্বামী শ্যামল কর্মকার-এর মৃত্যুতে তাঁর শোকসন্তপ্ত পরিবারের প্রতি সমবেদনা জানিয়েছেন উদীচী’র কেন্দ্রীয় সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদকসহ অন্যান্য নেতৃবৃন্দ।

Leave a Reply